Rape
All physical relations are not Rape

All physical relations are not Rape

একজন প্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ – ব্যাপারটা অগ্রহনযোগ্য

এ পর্যন্ত আমাকে যারা হুমকি দিয়েছেন, এমনকি হত্যার হুমকিও দিয়েছেন ফেসবুকে তাদের প্রায় সবাই মামুনুল সাহেবের রুহানী সন্তান। তার পরেও এই ধর্ষণ মামলার ধর্ষণের সংজ্ঞার সঙ্গে আমি একমত নই। মামুনুল সাহেবের বিরুদ্ধে প্রতারনার মামলা দেয়া যায় এই ক্ষেত্রে। দেশে অরাজকতা সৃষ্টির পরিকল্পনা, বিভিন্ন সভায় ভিন্ন মতাবলম্বীদের হত্যা ও লাঞ্চিত করার প্ররোচনা দেয়াসহ অনেক ভয়ংকর বক্তব্য আছে তার, এই সমস্ত অনেক গুরুতর অপরাধে তার বিরুদ্ধে মামলা দেয়ার সুযোগ আছে, তবে জান্নাত আরা ঝর্ণার সঙ্গে বড় প্রতারনা করা ছাড়া ধর্ষণ হয়েছে বলে আমি মনে করি না। নীচের স্ট্যাটাসটা আমি পোস্ট করেছিলাম ৯ অক্টোবর ২০০০ এ।

===========
কোন পুরুষের সাথে সম্পর্ক চলার সময় একমাত্র শারীরিক চাওয়া থেকেই আপনি, মানে একজন নারী বিছানায় যেতে পারেন, কোনো প্রতিশ্রুতি থেকে নয়। প্রতিশ্রুতি অর্থাৎ বিয়ে কালচারে আপনি এতোই যদি বিশ্বাসী হোন, তবে বিয়ে অব্দি অপেক্ষা করুন। শুনুন, প্রতিশ্রুতি একটি আপেক্ষিক ব্যাপার এইটা যদ্দিন না বুঝবেন তদ্দিন জানবেন, বিছানায় যাবার বয়স আপনার হয় নাই। নিজেকে ব্যক্তিত্বহীন বেকুব প্রমান করার জন্য “ও আমাকে ইউজ করেছে”-বলবেন না।

এইসব নালিশ করার থেকে নিজেরে নিজে শুধরান। ইমোশনাল হবার পাশাপাশি ইন্টিলেজেন্ট হোন। মায়াবতী হবার পাশাপাশি মারকুটে হোন, আর এতোই যদি সাহসী হোন তবে আপনিও শরীর ভোগ করতে শেখেন। নালিশ আর ভালোলাগে না, নালিশ করবেন না। বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রী নেয়া মেয়ে যখন আমার কাছে এসে বলে, “আপু, ও আমাকে বিয়ে করবে বলে ইউজ করে চলে গেলো’- তখন ‘ও’ নামক পদার্থটার প্রতি আমার যতোটা না রাগ হয়, তার চেয়ে দশ গুন রাগ হয় ইনোসেন্ট আপুরটার ওপর!

যেহেতু আপনি বিয়ে কালচারে বিশ্বাসী, আপনার উচিৎ ছিল বিয়ে অব্দি অপেক্ষা করা। নারী মুক্তির লুতুপুতু সংজ্ঞা বাদ দিয়ে শক্ত হোন। হয় প্রতি মিনিটকে ভোগ করতে শিখুন নিজ দায়িত্বে, অথবা শক্ত ভাবে নিজের বিশ্বাসে অটল থাকুন বিয়ে অব্দি। একই সাথে আপনি প্রথাগত সামাজিক নিয়মের শেল্টার এবং প্রথাগত সামাজিক নিয়মের হন্তারক হলে তো হবে না আপু।
এক নৌকাতে আসেন।

এবং…. আফটার বিয়ে অথবা বিফোর বিয়ে শারীরিক সম্পর্কে ইউজ শব্দটা ‘কনডম’ এ সীমাবদ্ধ রাখুন। নিজের নির্বুদ্ধিতায় একটা শিশুর প্রান নিয়ে খেলবেন না।

[ তামান্না সেতু ]

===============
বাংলাদেশের আইনেও আছে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করে পরে বিয়ে না করলে ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করা যায়। মেয়ে যদি অপ্রাপ্তবয়স্ক হয় তবে বিয়ের প্রতিশ্রুতি বা বিলিওনিয়ার করার প্রতিশ্রুতি যাই থাক সেটা ধর্ষণ। কিন্তু একজন প্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ – ব্যাপারটা অগ্রহনযোগ্য। ধরেন আপনি কোন দোকান থেকে বাকীতে মাল কিনে পরে আর পাওনা পরিশোধ করলেন না, সেক্ষেত্রে দোকানী কি আপনার নামে ছিনতাইয়ের মামলা দিতে পারে ? এখানে বড়জোর প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ বা প্রতারনার মামলা দেয়া যায়। ‘বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ’- এই কথাটি বিশ্রী একটা কথা। এর মাধ্যমে ধর্ষণের মতো একটা ভয়ংকর অপরাধকে হালকা করে দেয়া হয়। দুইজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষ সজ্ঞানে মিলিত হলে সেটি ধর্ষণ নয়।

ধর্ষণ গভীর একটি বিষয়। ধর্ষণ করা মানে একজন মানুষকে ভয় দেখিয়ে, জোর করে, চাপ প্রয়োগ করে তাঁর অনিচ্ছায় তাঁকে যৌনতায় সম্পৃৃক্ত করা। এক্ষেত্রে বিবাহিত স্ত্রী বা যৌনকর্মী, তাদেরকে জোর করলে সেটাও ধর্ষণ। ধর্ষণ ভয়ংকর অপরাধ। কারন এখানে ভিকটিম আর সহজে সেরে উঠেন না। হয়তো শারিরীক কষ্ট দ্রুতই মিলিয়ে যায়, কিন্তু মানসিক যে ক্ষতি হয় সেটি আদৌ কোনোদিন সারে কি না সেই প্রশ্ন রয়ে যায়। ধর্ষণ একজন ভিকটিমের পৃথিবীকে ছিন্নভিন্ন করে দেয়, তাঁর আত্মবিশ্বাস নষ্ট করে দেয়, যে অপমানবোধ তাঁকে ঘিরে ধরে তা বাকি জীবন তাড়িয়ে বেড়ায়। হয়তো মানসিক ভাবে শক্ত মানুষেরা সেই ক্ষত থেকে বেরিয়ে আসতে পারেন, কিন্তু তেমন শক্ত মানুষের সংখ্যা তো হাতে গোনা।

দুইজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ যখন সম্মতির ভিত্তিতে মিলিত হন, তখন সকল ঝুঁকি ও দায়ভার তাঁদের। একজন প্রতারনা করলে আরেকজন প্রতারনার মামলা করতে পারেন, কিন্তু ধর্ষণের মামলা করলে প্রকৃত ধর্ষণের ঘটনাগুলোকে অপমান করা হয়।

Related Posts

Are all Books Good

সব বই মানুষকে আলোকিত করে না, আলোকিত করে আলোকিত মানুষ

প্রিন্টিং প্রেস আবিষ্কারের পরে ইউরোপের সেই সময়ের সর্বাধিক পঠিত বই ছিল কিভাবে “উইচ হান্ট” করে-Read More

1971 Genocide

ইতিহাসের অন্যতম নৃশংসতম গণহত্যা এখনো আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়নি

আজ ২৫ শে মার্চ, গণহত্যা দিবস। ১৯৭১ সালের আজকের এই দিন থেকে শুরু করে ১৬Read More

BCS-Mania: an Ominous Trend

অখাদ্য শিক্ষাব্যবস্থা ও দুর্বৃত্তায়নের সিস্টেমে সবাই শুধু বিসিএস হতে চায়

যারা সত্যিকারের জ্ঞানপিপাসু তাদের পড়ার জন্য এমন আলাদা জায়গায় টেবিল চেয়ার নিয়ে বসতে হয় না।Read More

Comments are Closed