COVID-19
Coronavirus A Doctors Story

Coronavirus: A Doctor's Story

২০২০ঃ করোনাভাইরাস জন্ম দিলো অনেক ইতিহাস, এক নারী ডাক্তারের ভাষায় দেখুন তার একটু

হাসপাতালে যাওয়ার পথে রাস্তার দিকে দেখতে দেখতে যাই। শত ভীড়, কোলাহল আর জ্যাম পাড়ি দিয়ে যেসব পথগুলো দিয়ে যেতাম, সেসব এখন অনেকটাই নির্জন। হাসপাতালের সামনেও লোকসমাগম কম, কিন্তু ভিতরের চিত্র একেবারেই আলাদা। প্রায় সববেডেই ভর্তি রোগী। জরুরি বিভাগে কিছুক্ষণ পরপরই রোগী আসছে। প্রাত্যহিক রোগগুলিও যে থেমে নেই। যখনই কেউ জ্বর, কাশি আর শ্বাসকষ্ট নিয়ে আসে আমার ভিতরটা কেঁপে উঠে। রোগীর লোকদের বাসা কোথায় জানতে চাইলে কেমন যেন রেগে যায়, অনেকে বিরক্ত হয়। সবাই বোঝাতে চায় তাদের করোনা নেই। অনেকে যুক্তি দিয়ে বুঝিয়ে দেয় তাদের করোনা হতেই পারে না!

Coronavirus: A Doctor's Story

রোগীরা আসে দূরদূরান্ত থেকে। ভীতসন্ত্রস্ত তাদের চাহনি! খেয়াল করলাম তারা সবাই মাস্ক পরা। ভালো লাগে দেখে যে তারা এখন অনেকটাই সচেতন, কিন্তু মাস্কটা যে কাপড়ের সেই সাধারণ মাস্ক! ধূলোবালি থেকে কিছুটা মুক্তি দিলেও করোনাকে কখনই এসব ঠেকাতে পারবে না। কত নিরীহ মানুষগুলা, সবাই বাঁচতে চায় কিন্তু বাঁচার সামর্থ্য থেকেও নেই! যে মাস্কটা সত্যিকারেই কার্যকর সেটা তাদের জন্য অনেকই দামী। আর এখনতো বাজারে আবার নকলের রাজত্ব। নকলের আড়ম্বরে প্রবল প্রতাপশালী প্রজারা!

আমার বেতনে দুটো পিপিই, দুটো মাস্ক, দুটো গগোলস কিনেই আমি ক্ষান্ত। আর মাস্কটা আসল কিনা নকল, তা ভাবতে ভাবতে আমি ক্লান্ত! কোন বাড়তি অনুদানের আশায় কাজ করিনা। কোন যোগ্য প্রতিদানের ভাষাও আমি চিনিনা। কর্মক্ষেত্রে শুধু উপযুক্ত নিরাপত্তা চাই। বিষবাষ্পে আমি নীল হতে চাইনা। চাই শুধু পর্যাপ্ত করোনা প্রতিরোধক। রুখে দিতে চাই অদৃশ্য সেই দানবকে।

জানি এই ভয়াল কালোরাত ছাপিয়ে একদিন ভোরের আলো ঠিকই আসবে। শুধু সেটা দেখার জন্য আমি, আমরা থাকব কিনা জানিনা! অসীম শক্তিধর একজন উপর থেকে সব দেখছেন। শেষের শুরুটা পরম আদর নিয়ে তিনিই টানবেন। এটাই আমার বিশ্বাস।

[ ডা. জোহরাফ মুনা ]

Related Posts

1971 Genocide

ইতিহাসের অন্যতম নৃশংসতম গণহত্যা এখনো আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়নি

আজ ২৫ শে মার্চ, গণহত্যা দিবস। ১৯৭১ সালের আজকের এই দিন থেকে শুরু করে ১৬Read More

BCS-Mania: an Ominous Trend

অখাদ্য শিক্ষাব্যবস্থা ও দুর্বৃত্তায়নের সিস্টেমে সবাই শুধু বিসিএস হতে চায়

যারা সত্যিকারের জ্ঞানপিপাসু তাদের পড়ার জন্য এমন আলাদা জায়গায় টেবিল চেয়ার নিয়ে বসতে হয় না।Read More

Save the Endangered Animals

বনের পশু ধরবেন আর খাবেন, এতটা বণ্য কি এখনো আছেন আপনারা ?

গহীন বনে পাথুরে নদীতে স্যামন মাছ পায়ের কাছ দিয়ে উপরে উঠছে। আপনি চাইলেই ১০/২০ টাRead More

Comments are Closed